• রোববার   ২৯ মার্চ ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৫ ১৪২৬

  • || ০৪ শা'বান ১৪৪১

ষাট গম্বুজ বার্তা
সর্বশেষ:
বাগেরহাটে ছিটানো হচ্ছে জীবাণুনাশক পানি বাগেরহাটে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৩২৮ জন ২৭তম স্প্যানে পদ্মা সেতুর চার কিলোমিটারের বেশি দৃশ্যমান করোনায় নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি, সুস্থ আরও ৪ জন টাঙ্গাইলে সিমেন্টভর্তি ট্রাক উল্টে নিহত বেড়ে ৬
৩৩৮৩

ফিরে দেখা আ’লীগ সরকারের সফলতা : নারীর ক্ষমতায়ন ও উন্নয়ন

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ৩ জানুয়ারি ২০২০  

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। রুপকল্প ২০২১ এবং একশ’ বছরের ডেল্টা প্লানকে সামনে রেখে দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। উন্নয়নের মহান রুপকার, গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনার দূরদর্শী চিন্তাধারা ও যুগোপযোগী বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে দেশ থেকে দূর হয়েছে ক্ষুধা-দারিদ্র্য-বেকারত্ব। শিক্ষা, কৃষি, শিল্প, ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ, নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক নিরাপত্তা, স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠাসহ দেশের প্রতিটি সেক্টরে হয়েছে অভূতপূর্ব উন্নয়ন। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন নিয়ে আমাদের ধারাবাহিক পরিবেশনা।

অধিক জনসংখ্যার বাংলাদেশ দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের একটি দ্রুত উন্নয়নশীল রাষ্ট্র। বিশ্বের অষ্টম অধিক জনসংখ্যার এই দেশে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক অভিবাসনের হার দ্রুত বাড়ছে। একইভাবে শিল্পায়নের জন্য নগরায়নও দ্রুত বেড়ে চলেছে। মানুষের চাহিদার পাশাপাশি জীবনযাত্রার মানও বেড়েছে। প্রয়োজনের তাগিদে নারীরা ঘর থেকে বের হয়েছে। বিভিন্ন কলকারখানা, অফিস-আদালতে নারীর একটি বিশাল অংশ নিজেদের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে নিয়েছে। যেখানে ২০১০ সালে কর্মজীবী নারীর সংখ্যা ছিল ১ কোটি ৬২ লাখ, সেখানে ২০১৭ সালে এর সংখ্যা এসে দাঁড়ায় ১ কোটি ৮৬ লাখে। বাংলাদেশের সব নারীই ভোর থেকে রাত নাগাদ কোনো না কোনো কাজে নিজেদের ব্যস্ত রাখেন। তবে যারা অর্থের বিনিময়ে কর্ম সম্পাদন করেন, কেবল তাদের আমরা কর্মজীবী নারী বলি। নারীর যে বিশাল অংশ দিনরাত ঘরে পরিশ্রম করে, সন্তান লালন-পালন করে তাদের কাজকে অর্থনৈতিকভাবে আমরা মূল্যায়ন করি না। এমনকি অনেক ক্ষেত্রে নারীদের সঙ্গে পরিবারের পুরুষ সদস্যরা অসম্মানজনক আচরণও করে থাকে। এ অবস্থায় নারীর ক্ষমতায়ন ও উন্নয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশের নারীরা আজ অনেক দূর এগিয়ে গেছেন।

দ্য গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ রিপোর্ট অনুযায়ী, নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে ১৪৪টি রাষ্ট্রের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৪৭তম। অর্থাৎ এশিয়ার অন্যান্য দেশের তুলনায় নারীর ক্ষমতায়নের দিক থেকে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে আছে। এক্ষেত্রে ভারত, শ্রীলংকা, নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তানের অবস্থান যথাক্রমে ১০৮, ১০৯, ১১১, ১২৪ ও ১৪৩তম। বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নে এই সূচকের উন্নয়ন আশার সঞ্চার করে। নারীর ক্ষমতায়ন একটি দেশের সার্বিক উন্নয়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ক্ষমতায়নের বিষয়টি সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং সুশাসনের সঙ্গে অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত। ক্ষমতায়ন মানুষের পছন্দ ও সুযোগ বাড়ায়, ক্ষমতা মানুষের কাংখিত স্বপ্ন। ক্ষমতায়ন হলে দারিদ্র্য হ্রাসে সুফল পাওয়া যায়।

নারীর উন্নয়ন ঘটলেই একটি জাতির উন্নয়ন ঘটা সম্ভব। সব পর্যায়ের নারীর ক্ষমতায়নে সরকার শুরু থেকেই অত্যন্ত আন্তরিক। বাংলাদেশের নারীরা আজ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের সুনাম বৃদ্ধি করছে। আর এসব কিছুই সম্ভব হয়েছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে।

 

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা
উন্নয়ন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর