• মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৫ ১৪২৭

  • || ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ষাট গম্বুজ বার্তা
৭৬

মসজিদটি একটি গ্যাস লাইনের ওপর নির্মিত, অনুমোদন কে দিল?

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০২০  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার নারায়ণগঞ্জে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণ উদ্ঘাটনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন। ওই বিস্ফোরণে বেশ কয়েকজন হতাহত হয়েছেন।

আজ রবিবার সংসদে সদ্যঃপ্রয়াত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি এবং একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন ও ইসরাফিল আলমসহ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তির মৃত্যুতে জাতীয় সংসদে শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশগ্রহণকালে সংসদ নেতা এ কথা বলেন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী একাদশ জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশনে এই শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি নারায়ণগঞ্জের মসজিদে ওই বিস্ফোরণের কারণ উদ্ঘাটনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশ দিয়েছি। নারায়ণগঞ্জ মসজিদে বিস্ফোরণের কারণ উদ্ঘাটনে ইতিমধ্যেই একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং তদন্ত শুরু হয়ে যাওয়ায় খুব শিগগিরই কী কারণে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে তা বেরিয়ে আসবে বলে প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করছেন।

তিনি আরো বলেন, বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।

এ সময় সংসদ নেতা একটি গ্যাসের পাইপলাইনের ওপর মসজিদ নির্মাণের অনুমোদন অথবা এমন একটি ছোট জায়গায় ছয়টি এয়ারকন্ডিশনারে বিদ্যুৎ সংযোগের অনুমোদন দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো অনিয়ম হয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, এমন একটি ছোট জায়গায় ছয়টি এয়ারকন্ডিশনার স্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি মসজিদটি একটি পাইপলাইনের ওপর নির্মিত হয়েছে বলে জানা গেছে। সাধারণত গ্যাস পাইপের ওপর কোনো ধরনের স্থাপনা নির্মাণের অনুমতি নেই। রাজউক কি এই অনুমোদন দিয়েছে? কোনো প্রতিষ্ঠানই এই অনুমোদন দিতে পারে না। কারণ, তাহলে এ ধরনের দুর্ঘটনার ঝুঁকি থেকেই যায়। এখন এ ব্যাপারে তদন্ত করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী দেশব্যাপী অবৈধ স্থানে নির্মিত মসজিদ এবং এসব মসজিদে অপরিকল্পিতভাবে এয়ারকন্ডিশনার স্থাপনের বিষয়ে ভালোভাবে খোঁজ নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া অত্যন্ত জরুরি। অন্যথায় যেকোনো সময় এমন আরো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনাকে অনাকাঙ্ক্ষিত ও দুঃখজনক হিসেবে অভিহিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার এই ঘটনায় দগ্ধদের উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার জন্য সম্ভাব্য সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারির প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্তলাল সেনের সঙ্গে তাঁর সার্বক্ষণিক যোগাযোগ আছে এবং আহতদের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে তাঁকে অবহিত করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী এ ঘটনায় নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। এ ছাড়া তিনি এ ঘটনায় আহতদের আশু আরোগ্য কামনা করেন।

এখন পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে শুক্রবার রাতের ওই বিস্ফোরণে আহত ৫০ জনের মধ্যে ২৪ জন প্রাণ হারিয়েছেন। তাঁরা গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় রাজধানীর শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর