• সোমবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১১ ১৪২৮

  • || ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ষাট গম্বুজ বার্তা

৯ হাজার কোটি টাকা কাটছাঁট হচ্ছে সংশোধিত বাজেটে

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০২২  

রাজস্ব আদায়, আমদানি-রপ্তানিসহ অর্থনীতির বিভিন্ন সূচক এখনো ভালো আছে। তাই এবার সংশোধিত বাজেটে খুব বেশি কাটছাঁট করা হবে না। বরং এবার সংশোধিত বাজেটের আকার মূল বাজেটের চেয়ে মাত্র ১.৫ শতাংশ কমিয়ে আনা হচ্ছে। অন্যান্য সময় যা ৫-১০ শতাংশ করা হয়। রাজস্ব খাতে প্রবৃদ্ধি থাকায় তাতে এবার হাতই দেওয়া হচ্ছে না। এ ছাড়া বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকারও মাত্র ১০ হাজার কোটি টাকা কমানো হতে পারে। অর্থ বিভাগ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এ ব্যাপারে অর্থ বিভাগের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে কালের কণ্ঠকে বলেন, অর্থনীতিতে এখনো ওমিক্রনের আঘাত লাগেনি। ব্যবসা-বাণিজ্যে গতি ফিরে আসছে। তাই রাজস্ব আদায়ের প্রবৃদ্ধিও ভালো। এসব বিবেচনায় নিয়ে এবার সংশোধিত বাজেটে কাটছাঁট কম করা হচ্ছে।

অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চলতি ২০২১-২০২২ অর্থবছরের মূল বাজেটের আকার ছয় লাখ তিন হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। সংশোধিত বাজেটে এটি আট হাজার ৬৮১ কোটি টাকা কমানো হচ্ছে। অর্থ বিভাগ সংশোধিত বাজেটের আকার পাঁচ লাখ ৯৫ হাজার কোটি টাকা করার প্রস্তাব করেছে।

গত ছয় মাসে রাজস্ব আদায় ভালো হয়েছে। প্রাথমিক হিসাবে গত ছয় মাসে রাজস্ব আদায়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ২০ শতাংশ। আমদানি-রপ্তানি বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারের রাজস্ব আদায়ও বেড়েছে। চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে অর্থাৎ জুলাই থেকে নভেম্বর সময়ে রাজস্ব আদায় হয়েছে এক লাখ ২৬৭ কোটি টাকা। আগের অর্থবছরের একই সময়ে রাজস্ব আদায় হয় ৮৭ হাজার ১৯৪ কোটি টাকা। অর্থাৎ গত বছরের তুলনায় এবার ১৩ হাজার ৭৩ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আদায় করেছে এনবিআর। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আশা করছে, অর্থবছরের বাকি ছয় মাসে রাজস্ব আদায় প্রবণতা একই ধারায় বিদ্যমান থাকবে। এ ধারা অব্যাহত থাকলে রাজস্ব আদায় তিন লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাই রাজস্ব খাতে এবার কাটছাঁট করা হচ্ছে না। চলতি অর্থবছরের বাজেটে এনবিআর খাতে রাজস্ব আদায় লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে তিন লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা।

রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাওয়ায় এবার সরকার গত অর্থবছরের তুলনায় ব্যয়ও করতে পারছে বেশি। চলতি অর্থবছরের জুলাই-নভেম্বর মাসে সরকার এক লাখ ৩২ হাজার ৮৭৮ কোটি টাকা ব্যয় করেছে, যা মোট বাজেটের ২৩ শতাংশ। গত অর্থবছরের একই সময় থেকে এটি ৭.১ শতাংশ বেশি।

রাজস্ব আদায় ভালো হওয়ায় এবার বাজেট ঘাটতি কম হবে বলে ধারণা করছেন অর্থ বিভাগের কর্মকর্তারা। সর্বশেষ হিসাবে চলতি অর্থবছরে জুলাই-নভেম্বর সময়কালে বাজেট ঘাটতি হয়েছে ৯ হাজার ৩২০ কোটি টাকা। এর আগের অর্থবছরে একই সময়ে হয়েছিল ১২ হাজার ১৫০ কোটি টাকা।

অন্যদিকে সংশোধিত বাজেটে এডিপির আকার প্রায় ৫.৫ শতাংশ কমানো হচ্ছে। চলতি অর্থবছরে এডিপির আকার রয়েছে দুই লাখ ২৫ হাজার ৩২৪ কোটি টাকা। এটিকে কমিয়ে দুই লাখ ১৫ হাজার কোটি টাকা করা হচ্ছে।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা