• শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৭ ১৪২৯

  • || ০১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

ষাট গম্বুজ বার্তা

ভারতের তীব্র তাপপ্রবাহ, ‘কমলা’ সতর্কতা জারি

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ১৫ মে ২০২২  

ভারতের উত্তর-পশ্চিমে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ। ইতোমধ্যে কমলা সতর্কতা জারি করেছে দেশটির আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, দিল্লির তাপমাত্রা পৌঁছে যেতে পারে ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

শুক্রবার দিল্লির নজফগড়ের তাপমাত্রা উঠেছিল ৪৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আপাতত পরিস্থিতি পরিবর্তনের আভাসও নেই। আশঙ্কা করা হচ্ছে আপাতত গড় তাপমাত্রা ৪৪ ডিগ্রির আশপাশে থাকবে। এই পরিস্থিতিতে মানুষকে ঘরের বাইরে বের হওয়ার বিষয়ে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে।  

এপ্রিলেও একইরকম গরমে পুড়েছে দিল্লি। এপ্রিলের গরমের মতো গরম দিল্লিতে সবশেষ দেখা গিয়েছিল ১৯৫১ সালে। এবারের এপ্রিলে বৃষ্টি হয়েছে মাত্র ০.৩ মিলিমিটার। মার্চে অবশ্য স্বাভাবিক বৃষ্টি পেয়েছিল দিল্লি।

মূলত এ বছরের মার্চ থেকেই তাপপ্রবাহ চলছে দিল্লিতে। মার্চে একটি তাপপ্রবাহের পরে এপ্রিলে আসে তিনটি তাপপ্রবাহ।

সাধারণভাবে যদি সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির বেশি হয় এবং স্বাভাবিকের থেকে তা যদি ৪.৫ ডিগ্রি বেশি থাকে, তাহলে সেখানে তাপপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়।

কিছুদিন আগেই ভারতে আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছিলেন, খুব শিগগিরই উত্তর ভারতের তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি পেরিয়ে যাবে। মনে করা হচ্ছে সেই দিকেই এগোচ্ছে দিল্লি।  

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, সাধারণত মে মাসকে সর্বাধিক গরমের মাস বলে মনে করা হয়। কিন্তু এবার উত্তর পশ্চিম ও মধ্য ভারতে এপ্রিলের গড় তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও ৩৭.৭৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস; যা স্বাভাবিক গড় তাপমাত্রার চেয়ে ৩.৩৫ ডিগ্রি বেশি। অন্যদিকে মধ্য ভারতে ১৯৭৩ সালের এপ্রিলের গড় তাপমাত্রা ৩৭.৭৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের রেকর্ড এ বছর ভেঙেছে। সেই সময়েই মনে করা হচ্ছিল ভয়ঙ্কর মে মাস আসতে চলেছে। কার্যত সেই অবস্থার মুখোমুখি উত্তর ভারত।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা