• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৯

  • || ১৫ মুহররম ১৪৪৪

ষাট গম্বুজ বার্তা

চিতলমারীতে ঘেরের চিংড়ি ঘেরে মড়ক

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ৩ আগস্ট ২০২২  

বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার চিংড়ি চাষিরা এখন চরম হতাশায় ভুগছেন। অনাবৃষ্টি ও অধিক তাপমাত্রার কারণে এলাকার অধিকাংশ চিংড়ি ঘেরে অক্সিজেন ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এতে ঘেরের চিংড়িসহ অন্যান্য মাছ মারা যাওয়ায় চাষিদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে।

এলাকার চিংড়ি চাষিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ বছর বর্ষা মৌসুমে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়া ও অনাবৃষ্টির কারণে অধিকাংশ ঘেরে পানি কম। এ কারণে পানিতে অক্সিজেন ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এতে ঘেরের চিংড়ি ও অন্যান্য মাছ ভেসে কূলের কাছে এসে ছটফট করে মারা যাচ্ছে। এ পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার জন্য নানা প্রকার মেডিসিন ও বাইরে থেকে ঘেরে পানি সেচ দিচ্ছেন অনেকে। এতেও সুফল মিলছে না অনেকের। ফলে এ অবস্থা চলতে থাকলে চিংড়ি চাষে বিপুল লোকসানের মুখে বলে মনে করছেন চাষিরা।

উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের চিংড়ি চাষি যোগেন গাইন, ডুমুরিয়া গ্রামের বৈষ্ণব রায়, অনাদি মণ্ডল, পাড়ডুমুরিয়া গ্রামের শিবানী ভক্তসহ অনেকে হতাশা ব্যক্ত করে জানান, এমন বৈরী আবহাওয়া চিংড়ি চাষের জন্য খুবই প্রতিকূল। ভরা শ্রাবণে বৃষ্টি না হওয়ার কারণে ঘেরে পানি নেই। রোদের প্রচণ্ড দাবদাহে একদিকে ঘেরের পানি গরম হয়ে যাচ্ছে; অন্যদিকে সামান্য বৃষ্টি হলেই দেখা দিচ্ছে অক্সিজেন ঘাটতি। ফলে এ সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শেখ আসাদুল্লাহ জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে চিংড়ি ঘেরে অক্সিজেন ঘাটতি দেখা দিতে পারে- এমন বিষয় মাথায় রেখে কয়েক দিন আগে এলাকায় চাষিদের সচেতন করতে মাইকিং করা হয়েছে এর প্রতিকারের জন্য। ঘেরে অক্সিজেন ট্যাবলেট প্রয়োগসহ পানি সেচ দিতে বলা হয়েছে।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা