• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ষাট গম্বুজ বার্তা

কচুয়ায় সড়কের মাঝখানে পিলার, ঘটছে দুর্ঘটনা

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ১১ মে ২০২৩  

বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার ধোপাখালী-মাদারতলা সড়কের মাঝখানে পিলার স্থাপন করায় প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। এছাড়া, সড়কের প্রবেশ মুখে দুটি পিলার থাকায় বড় যানবাহন প্রবেশ করতে পারছে না। এতে ভোগান্তি বেড়েছে।
স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সড়ক রক্ষার কথা বলে মাস দুয়েক আগে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) নির্মিত ধোপাখালী-মাদারতলা সড়কের প্রবেশ মুখে দুটি এবং এর এক কিলোমিটার দূরে নিজের বাড়ির সামনে সড়কের উপর দুটি পিলার স্থাপন করেন ধোপাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন।
এর ফলে, সড়কে কোনো ট্রাক ও বড় গাড়ি ঢুকতে পরে না। এতে ওই এলাকার কৃষকদের উৎপাদিত সবজি পরিবহনে খরচ বহুগুণ বেড়ে গেছে। সেই সঙ্গে দুর্ঘটনা, চলাচলে সময় বৃদ্ধিসহ নানা ধরণের ভোগান্তি বেড়েছে।
মোহসিন মল্লিক নামের এক পথচারী বলেন, ‘রাস্তার প্রবেশ মুখে দুটি পিলার দিয়ে যানবাহনের স্বাভাবিক চলাচল ব্যহত করার কোনও মানেই হয় না। এই পিলারের জন্য কয়েকটি দুর্ঘটনাও ঘটেছে। মাঝেমধ্যে কয়েকটি অটো একসঙ্গে আসলে জ্যামের সৃষ্টি হয়। তখন যানবাহন চালকদের দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থাকা লাগে।’
এ বিষয়ে ধোপাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন বলেন, ‘আমি নিজে থেকে পিলার স্থাপন করিনি। সবার সিদ্ধান্ত মোতাবেক রেজুলেশন অনুযায়ী সড়কে পিলার দেওয়া হয়েছিল। কিছু ধান ব্যবসায়ীর সমস্যা হওয়ায় তারা বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ করছেন।’
এলজিইডি, বাগেরহাটের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শরিফুজ্জামান বলেন, ‘খবর পেয়ে চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনের সড়কের উপর থাকা দুটি পিলার উঠিয়ে ফেলা হয়েছে। সড়কের প্রবেশ মুখে থাকা পিলার দুটিও উঠানো হবে।’

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা