• বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৫ ১৪৩১

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

ষাট গম্বুজ বার্তা

মবক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতির সত্যতা পাওয়া গেছে

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২৩  

বাগেরহাটের মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ডেপুটি ট্রাফিক ম্যানেজার মো. সোহাগের বিরুদ্ধে দাপ্তরিক চিঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতির অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। অভিযুক্ত ওই কর্মকর্তা বিকৃত কথাবার্তা বলে জাতির মানহানি করেছে বলেও মন্তব্য করেছেন পিবিআই তদন্ত কর্মকর্তা। 
গত রোববার (২১ মে) সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত নং-৬ এ পিবিআই পুলিশ সুপার মো. আব্দুর রহমান স্বাক্ষরিত এক অনুসন্ধান প্রতিবেদনে এ সব তথ্য জানানো হয়। প্রতিবেদন ও মামলা সূত্রে জানা যায়, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ডেপুটি ট্রাফিক ম্যানেজার মো. সোহাগের বিরুদ্ধে দাপ্তরিক চিঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতির অভিযোগ এনে গেল বছরের ৪ সেপ্টেম্বর বাগেরহাট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন রামপাল উপজেলা তাতী লীগের সভাপতি নাজমুল হাসান শেখ। 
এজাহারে তিনি উল্লেখ করেন, ২০২১ সালে মোংলা বন্দর থেকে বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরিত ডেপুটি ট্রাফিক ম্যানেজার মো. সোহাগের স্বাক্ষরিত অন্তত ৮টি চিঠিতে বঙ্গবন্ধুর ছবি সংবলিত লোগো কলম দিয়ে কেটে পাঠানো হয়। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দেন। ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর পিবিআই, বাগেরহাট কার্যালয়ের পুলিশ পরিদর্শক ইকরাম হোসেন মামলাটি তদন্ত শুরু করেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শন, ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ, দাপ্তরিক কাগজপত্রসহ বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত পর্যালোচনা শেষে তিনি তদন্ত প্রতিবেদন দেন। ওই প্রতিবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক ইকরাম হোসেন উল্লেখ করেন, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ডেপুটি ট্রাফিক ম্যানেজার সোহাগ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘জন্মশত বার্ষিকী’ উপলক্ষে সরকারের জারিকৃত ‘মুজিব শতবর্ষ’ লোগো কেটে বিকৃতি করেছেন। এছাড়া তিনি সাক্ষীদের কাছে মানহানিকর ও বিকৃত কথাবার্তা বলে জাতির মানহানি করেছেন। মামলার বাদী রামপাল উপজেলা তাতী লীগের সভাপতি নাজমুল হাসান শেখ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্য স্বাধীন দেশ পেয়েছেন। সেই বঙ্গবন্ধুর যিনি মানহানি করেছেন, তাকে চাকরিচ্যুতিসহ কঠোর শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান।  বাদী পক্ষের আইনজীবী ফকির ইফতেখারুল ইসলাম রানা বলেন, মামলার তদন্ত সংস্থা পিবিআই অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে। ধার্য্য তারিখে আদালত পরবর্তী নির্দেশনা দেবেন। তিনি আশা করেন, তিনি ন্যায় বিচার পাবেন।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা