• সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

  • || ০৭ মুহররম ১৪৪৬

ষাট গম্বুজ বার্তা

ইস, যদি ফিরতে পারতাম!

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯  

সব ছবি করেছেন শাকিব খানের বিপরীতে। প্রথমবার নিরবের বিপরীতে, অভিজ্ঞতা কেমন?

‘ক্যাসিনো’র শুটিং শুরু হয়েছে কয়েক দিন হলো। অন্যরকম একটা অভিজ্ঞতা। কারণ, অন্য একটি টিমের সঙ্গে কাজ করছি। ভিন্ন নায়ক, ভিন্ন পরিচালক- নির্মাতা সৈকত নাসিরের সঙ্গেও এটি আমার প্রথম কাজ। সবকিছু নিয়ে আমার কাছে মনে হচ্ছে কাজটা ভালো হচ্ছে। কাজটা সুন্দর করে শেষ করার পর দর্শকের কাছে পৌঁছে দিতে চাই।

 

 

একজনের বিপরীতে অভ্যস্ত, তাই অভিনয়ের ক্ষেত্রে কোনো দ্বন্দ্ব বা সংকটে পড়ছেন কি?

‘ক্যাসিনো’তে কাজ করতে গিয়ে অন্যরকম অভিজ্ঞতা হয়েছে। আমার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের সবছবিতেই নায়ক হিসেবে পেয়েছি শাকিব খানকে। এবারই প্রথম অন্য আরেকজন নায়কের সঙ্গে কাজ করছি। এছাড়া এ ছবিতে তাসকিন রহমানও আছেন। এই যে একটা পরিবর্তন, অন্যান্য শিল্পীর সঙ্গে যে সমন্বয় ঘটানো- সবকিছু মিলে আমি বলব দারুণ একটা অভিজ্ঞতা।

 

‘ক্যাসিনো’ নামকরণকে অনেকে বাঁকা চোখে দেখছেন, কেউ বলছেন স্ট্যান্টবাজি...

হা. হা.. হা...। চলচ্চিত্র সমাজের সমসাময়িক ব্যাপারগুলোকেই উপস্থাপনের চেষ্টা করে। সময়ের সঙ্গে, পরিবেশের সঙ্গে চলচ্চিত্র সম্পর্কিত। আমরা দেখি যে, সমাজের নানারকম ঘটনা নিয়ে ছবির নাম হয়, ছবির কাহিনি বোনা হয়। সবকিছু হয় সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়েই। সেদিক থেকে বলব ‘ক্যাসিনো’র ব্যাপারটা এরকম নয়।

এ ছবিতে হয়তো কিছু বিষয় স্বাভাবিকভাবে চলে এসেছে। তবে ছবির গল্পের সঙ্গে মিলিয়েই ছবির নামকরণ করা হয়েছে। আর ক্যাসিনো শুধু বাংলাদেশ নয়, এটা বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে আলোচিত একটা বিষয়। ওই জায়গা থেকেই এ নামকরণ ও তৈরি করা হচ্ছে। অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন যে, সাম্প্রতিক ঘটনার সঙ্গে কোনো সম্পৃক্ততা থাকবে কিনা... ইত্যাদি। আমি বলব, আমাদের ছবিটির সঙ্গে এসবের কোনো সম্পৃক্ততা একেবারেই নেই।

 

শাকিবের সঙ্গে মনোমালিন্য, নাকি তার অনুমতি নিয়েই...

আমি যখন শাকিব খানের সঙ্গে টানা কাজ করেছি, তখন এরকম একটা গসিপ ছিল যে, বুবলী অন্য হিরোদের সঙ্গে কাজ করবে কী করবে না। তখনো আমি বলেছি, আমার কাছে অনেক ছবির প্রস্তাব এসেছে। আমি ভেবেচিন্তে কাজ করতে চাই। তখন অনেকে বলত আমি শুধু বলার জন্য বলছি। এখন যখন আমি অন্য হিরোদের সঙ্গে কাজ করছি তখন অন্যরকম গসিপ হচ্ছে। অনেকে অনেক কিছুই ভাবতে পারেন। সবাইকে কখনই উত্তর দিয়ে একসঙ্গে সন্তুষ্ট করা সম্ভব নয়।

 

এখন কি শাকিবের সঙ্গেও শুটিং চলছে?

হ্যাঁ। আমি এখনো শাকিবের সঙ্গে কাজ করছি।

‘বীর’ ছবির শুটিং চলছে আমাদের।

 

‘বীর’ ছবিটি নির্মাতা কাজী হায়াতের ড্রিম প্রজেক্ট। তার মতো গুণী নির্মাতার সঙ্গে কাজের অনুভূতি...

আমার সব ছবির নায়ক ছিলেন শাকিব খান। তার সঙ্গে কাজ করে যে অভিজ্ঞতা হয়েছে তা কাজে লাগছে। হায়াৎ আঙ্কেল অনেক বড় মাপের নির্মাতা। তার নিজস্ব একটা স্টাইল আছে। সেটে ঢোকার পর আমার কাছে নতুন একটা পৃথিবী মনে হয়। 

 

সংবাদপাঠিকা হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু, পুরনো সেই পেশার টানে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছা আছে?

চলচ্চিত্রে আসায় ভালোবাসার জায়গাটার ব্যাপ্তি অনেক বেড়েছে। সংবাদ তো নির্দিষ্ট কিছু মানুষই দেখতেন। চলচ্চিত্রের জায়গাটা তো অনেক বড়। কিন্তু আমার মাঝে মাঝেই মনে হয়, ইস, যদি ফিরতে পারতাম! কিন্তু এখন যেহেতু চিন্তাভাবনার পুরোটাজুড়েই চলচ্চিত্র, সামনের দিনগুলোতেই চাই চলচ্চিত্র নিয়ে থাকতে। যদি কখনো

সুযোগ হয়... কোনো উৎসবে যদি বলা হয় নিউজ

পড়তে- অবশ্যই আমি যাব।

 

চলচ্চিত্রের সংকটের জন্য কেউ বলছেন চিত্রনাট্য নেই, কেউ বলছেন প্রযোজক নেই... এ সংকট উত্তরণের উপায়?

আমার স্বল্প অভিজ্ঞতা থেকে বলব, আসলেই সংকট থেকে উত্তরণ চাই কিনা আমরা- এ বিষয়ে আমাদের পরিষ্কার হতে হবে। সংকট থাকলে তা থেকে উত্তরণের উপায়ও আছে। আমাদের মন-মানসিকতা পরিবর্তন দরকার। আমরা যারা আছি সবাই উত্তরণটা চাচ্ছি কিনা সেটা যদি পরিষ্কার হয়ে যায় তাহলে খুব সহজভাবেই সমাধান সম্ভব।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা