• সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ২ ১৪৩১

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

ষাট গম্বুজ বার্তা

শীত ফ্যাশনে জড়িয়ে নিন কান টুপি, হাত মোজা আর মাফলার

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩  

 

শীতের কারণে পরিবর্তন এসেছে মানব জীবন যাপনে। এ সময়ে নানা স্বাদের খাবার আর উৎসবের আমেজ ভিন্ন মাত্রা যোগ করে যাপিত জীবনে। ঘন কুয়াশাচ্ছন্ন হিম শীতল দিনগুলো উষ্ণ করতে প্রয়োজন এখন ফ্যাশনেবল গরম কাপড়-চোপড়ের। যেমন- কান টুপি, হাত মোজা আর মাফলার না হলেই নয়।

শীতের ঠান্ডা থেকে সুরক্ষার জন্য গরম কাপড় কেবল আরামদায়ক হলেই হবে না, হতে হবে ফ্যাশনেবলও। উষ্ণতা পেতে যেসব অনুষঙ্গ প্রয়োজন তা নিয়েই আমাদের আজকের লেখা-

টুপি: কয়েক দশক আগেও মানুষ টুপি পরত শুধু শীত নিবারণের জন্য। কিন্তু এখন কেবল শীত না, ফ্যাশনের অনুষঙ্গ হিসেবেও ব্যবহৃত হয় নানাভাবে। বর্তমানে বিভিন্ন রকমের কান টুপি আছে বাজারে, যেমন- মাঙ্কি টুপি, মাফলার টুপি, ক্যাপের মতো টুপি, ঝোলা টুপি ইত্যাদি। শীত নিবারণের ক্ষেত্রে বেশি ব্যবহৃত হয় উলের তৈরি টুপি। এছাড়াও পুরনো ফ্যাশনের টুপির ভেতরে মোটা উলের টুপি, একসঙ্গে মুখ ও মাথা ঢাকার টুপিও আছে মার্কেটে। মুখের গড়ন ও পোশাকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে টুপি পরলে দেখতে বেশ ভালো লাগে।

তবে সবসময় এমন টুপি বেছে নেওয়া উচিত যা একটু ঢিলে হবে। কারণ টুপিতে ব্যবহৃত ইলাস্টিক বা রাবার কপালের কাছে আঁটসাঁট হয়ে থাকলে তা অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এমনকি কপালে দাগও হতে পারে।

মোজা: অতিরিক্ত ঠান্ডায় হাত ব্যথা ও অবশ থেকে শুরু করে নানা রকম চর্মরোগ হতে পারে। তাই শীত থেকে নিজেকে সুরক্ষার আরেকটি উপায় হচ্ছে হাত মোজা। হাত মোজা উলের তৈরি হওয়ায় এর মাধ্যমে ঠান্ডা হাতের ভেতরে প্রবেশ করতে পারে না। ফলে হাতের ত্বক ভালো থাকে। বর্তমানে ফ্যাশনেবল বিভিন্ন পা মোজা রয়েছে মার্কেটে। ডিজাইনভেদে সব ঋতুতেই এগুলো পরা যায়। তবে ঠান্ডা নিবারণে যেসব মোজা পরা হয়, সেগুলো একটু মোটা উল বা কাপড় দিয়ে তৈরি। তবে শীতের সময়ে পা মোজার ব্যবহার অনেক বাড়ে।

মাফলার: হালফ্যাশনে আরেকটি অনুষঙ্গ হচ্ছে মাফলার। তরুণ কিংবা তরুণী সবার পছন্দের তালিকায় আছে এটি। উলের নেট মাফলার থেকে শুরু করে এন্ডি কটন এবং পশমি মাফলারসহ নানা রঙের চেক মাফলার পাওয়া যায় মার্কেটে। মাফলারের রয়েছে দুটি ধরন। শর্ট এবং লং। মেয়েদের মাফলারগুলো কিছুটা শর্ট থাকে ছেলেদের তুলনায়। লতাপাতা, গাছপালা, প্রজাপতি থেকে শুরু করে নানা রকমের কারুকাজ করা থাকে মাফলারগুলোতে। আর ছেলেদেরগুলো সাধারণত কিছুটা লং এবং চওড়া আকৃতির। শহরের তুলনায় গ্রামে মাফলার ব্যবহারের প্রচলন বেশি।

দরদামের খবর: হাতে বোনা এবং চিকন উলের বিভিন্ন চেক মাফলার পাবেন ২’শ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যে। এছাড়া স্টাইলিশ বিভিন্ন ধরনের মাফলার ৪’শ থেকে ১৫শ’ টাকার মধ্যে পাওয়া যায়। সিঙ্গেল পার্টের নরমাল মাফলার পাবেন ১’শ থেকে ৩’শ টাকার মধ্যেই। হাত মোজা ও পা মোজার দাম ১’শ থেকে ৫’শ টাকা। কান টুপির দামও রয়েছে নাগালের মধ্যে।

পাবেন কোথায়: নিউমার্কেট, ইস্টার্ন প্লাজা, বসুন্ধরা সিটি অথবা আপনার আশপাশের অভিজাত শপিংমলগুলোতে পেয়ে যাবেন শীত নিবারণের জন্য পছন্দের নানা অনুষঙ্গ। আবার রাস্তার অলিতে-গলিতে ভ্যানে অথবা ফুটপাতেও পাওয়া যায় উষ্ণতার প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ।

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা