• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ষাট গম্বুজ বার্তা

সন্তান জানাজা পড়ালে মৃত পিতা-মাতার কোনো ফায়দা হয়?

ষাট গম্বুজ টাইমস

প্রকাশিত: ২ নভেম্বর ২০২৩  

মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তাআলা বলেন- کُلُّ نَفۡسٍ ذَآئِقَۃُ الۡمَوۡتِ  অর্থ: প্রত্যেক প্রাণীকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে’। (সূরা: আলে ইমরান, আয়াত: ১৮৫)

প্রাণী জগতের চিরন্তন সত্য এই মৃত্যতে জাত পাতের কোনো ভেদাভেদ নেই; সবাইকেই একদিন না একদিন মৃত্যুকে গ্রহণ করতেই হবে এবং মৃতকে বিদায়ের বেলায় যে যার ধর্মীয় রীতিনীতি অনুসরণ করে। এ ধারাবাহিকতায় মুসলিম কোনো ব্যক্তি মৃত্যু বরণ করলে তার জন্য জানাজার নামাজ আদায় করা হয়। আর এ নামাজ হলো ফরজে কিফায়া। ফরজে কিফায়া হলো সমাজের জন্য আবশ্যকীয় দায়িত্ব।

জানাজার নামাজ হলো মৃতব্যক্তির জন্য দোয়া। এটা নামাজের আকারে করা হয়। মৃত মুসলমানকে কবর দেওয়ার পূর্বে সংগঠিত হয় এ নামাজ।

তবে এখন কথা হলো, সন্তান জানাজার নামাজ পড়ালে মৃত পিতা-মাতার কোনো ফায়দা হবে মর্মে কোনো ফজিলত আসেনি। তবে সন্তানের দোয়া কবরে পৌছে মর্মে হাদিসে এসেছে। সেই হিসেবে জানাজাও যেহেতু দোয়া; তাই এর দ্বারা মৃত পিতা-মাতা উপকৃত হন বলা যায়।

হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত- রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘যখন মানুষ মারা যায়, তখন তারা আমল বন্ধ হয়ে যায়। তবে তিনটি আমল বন্ধ হয় না। একটি হলো, সদকায়ে জারিয়া। দ্বিতীয় হলো উপকারী ইলম এবং তৃতীয় হলো নেককার সন্তানের দোয়া’। (মুসলিম ১৬৩১)

ষাট গম্বুজ বার্তা
ষাট গম্বুজ বার্তা